মালয়েশিয়ান বিমানবন্দরের ট্রানজিটে এক মাসেরও বেশি আটকা সিরীয় যুবক

0
সিরীয় যুবক হাসান আল কোন্তার

মালয়েশিয়া বিমানবন্দরের ট্রানজিট সেকশনে এক মাসের বেশি সময় ধরে আটকা পড়ে থাকতে হয়েছে এক সিরীয়কে।

সিরিয়ার গৃহযুদ্ধের ফলেই তার এ ভোগান্তি।

হাসান আল-কোন্তারের এই দুর্দশা প্রকাশ্যে এসেছে কুয়ালালামপুর বিমানবন্দরে বসে তার নিজের ভিডিও পোস্ট করার মধ্য দিয়ে।

বিজ্ঞাপন

হাসান জানান, সংযুক্ত আরব আমিরাতে (ইউএই) ওয়ার্ক পারমিট খোয়ানোর পর ২০১৬ সালে তাকে সেখান থেকে মালয়েশিয়ায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়। সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধ শুরুর পর তিনি ওয়ার্ক পারমিট খুইয়েছিলেন।

হাসান বলেন, “আমি কাজ খুঁজতে ইউএই গিয়েছিলাম। কিন্তু সিরিয়ায় যুদ্ধের কারণে আমি চাকরি এমনকি ওয়ার্ক পারমিটও হারাই। এর পর থেকেই পালিয়ে বেড়াচ্ছি।”

ইউএই ২০১৭ সালে তাকে মালয়েশিয়ার একটি আটক কেন্দ্রে পাঠিয়ে দেয় জানিয়ে তিনি বলেন, সেখানে তাকে তিন মাসের টুরিস্ট ভিসা দেওয়া হয়েছিল।

এরপর হাসান ক্যাম্বোডিয়া এবং ইকুয়েডর যাওয়ার চেষ্টা করলেও সফল হতে পারেন নি। মালয়েশিয়ার ভেতরেও তিনি ঢুকতে পারেননি।

ভিসার মেয়াদ শেষের পরও থেকে যাওয়ার কারণে তাকে জরিমানা গুণতে হয়েছে এবং তিনি মালয়েশিয়ায় কালো তালিকাভুক্তও হয়েছেন। এখন তিনি মালয়েশিয়া বিমানবন্দরে আটকা পড়ে আছেন। বিমানবন্দর ছাড়তে পারছেন না, দেশের ভেতরেও ঢুকতে পারছেন না।

হোয়াটসঅ্যাপে একটি কলে বিবিসি কে হাসান বলেন, কতদিন ধরে এখানে আটকা পড়ে আছেন তারও হিসাব গুলিয়ে ফেলেছেন তিনি।

তিনি বলেন, “আমি মরিয়া হয়ে সাহায্য চাইছি। এ বিমাবন্দরে আর বেশিদিন থাকা আমার পক্ষে সম্ভব নয়। এ অনিশ্চয়তায় থাকলে আমি পাগল হয়ে যাব।”

এ বিষয়টি নিয়ে মালয়েশিয়া বিমানবন্দর কিংবা ইমিগ্রেশন বিভাগ সাংবাদিকদের কাছে কোনো মন্তব্য করেনি।

হাসান বলেছেন, মালয়েশিয়ায় অবৈধ হয়ে যাওয়ার পর তিনি ক্যাম্বোডিয়া যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু সেখানে পৌঁছার পরই তারা তার পাসপোর্ট জব্দ করে।

ক্যাম্বোডিয়ার অভিবাসন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা ‘নমপেন পোস্ট’কে বলেন, সিরীয়রা ক্যাম্বোডিয়ায় পৌঁছানোর পর ভিসা পেতে পারে। তবে তাদেরকে সরকারের কাছে প্রয়োজনীয় সব তথ্য দিতে হবে। একইসঙ্গে তাদের ক্যাম্বোডিয়া সফরের উদ্দেশ্যও যাচাই করে দেখতে হবে।

হাসান বলেন, ৭ মার্চে তাকে আবার কুয়ালালামপুরে ফেরত পাঠানো হয়। আর তখন থেকেই তিনি বিমানবন্দরে আটকা পড়ে আছেন।

Comments

comments

বিজ্ঞাপন